নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
দ্বীন ও দুনিয়া সমন্বয় করে শিক্ষায়দীক্ষায় এগিয়ে যাচ্ছে নুরুল কুরআন আদর্শ হিফজ মাদরাসা। যেটি মাত্র ৮ বছরের মাথায় এই প্রতিষ্ঠান কক্সবাজার জেলার গন্ডি পেরিয়ে বৃহত্তম চট্টগ্রামের একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানে পরিচিতি লাভ করেছে।

কক্সবাজার শহরের উত্তর তারাবনিয়ার (পুরাতন কমার্স কলেজ রোড) আহাদ ম্যানশনে নুরুল কুরআন আদর্শ হিফজ মাদরাসার অবস্থান। যেখানে আবাসিক-অনাবাসিকে নাজেরা, হিফজ, দাওর/শুনানি বিভাগ রয়েছে।

হিফজের পাশাপাশি ইবতেদায়ি প্রথম থেকে দাখিল ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানো হয়। পুরো ক্যাম্পাস সিসিটিভি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। সিসিটিভি দ্বারা ক্লাস পর্যবেক্ষণ ও সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়।

নুরুল কুরআন মাদরাসা ২০১৫ সালে স্থাপিত হয়। যার প্রধান পরিচালকের দায়িত্বে আছেন হাফেজ মাওলানা জাফর আলম। এখানে রয়েছে বিষয়ভিত্তিক অভিজ্ঞ ও দক্ষ শিক্ষক।

এই মাদরাসার শিক্ষার্থীরা ৩০ পারা কুরআন হিফজ করে পিএসসি পরীক্ষায় শতভাগ “এ প্লাস” ও শতভাগ ট্যালেন্টপুলে সরকারি বৃত্তি অর্জন করেছে।

নুরুল কুরআন মাদরাসার বিশেষত্বঃ
• দুর্বল, অমনোযোগি ও পিছিয়ে পড়া ছাত্রদের জন্য বিশেষ পাঠদানের ব্যবস্থা।

• প্রতিদিন হিফজের ডায়েরি ও শ্রেণি কক্ষের পড়া তদারকি করা হয়।

• বয়স ও ধারণ ক্ষমতার বিষয়টি সক্রিয় বিবেচনায় নিয়ে আমরা পাঠ পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন।

• নামেমাত্র হাফেজ নয়, পবিত্র কুরআনের হিফজের পাশাপাশি একজন দক্ষ ও দ্বীনদার আলেম তৈরী।

• পর্যাপ্ত সংখ্যক অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলী দ্বারা পাঠদান, ক্লাসের পড়া ক্লাসে আদায় করা হয় এবং কোন বাড়ির কাজ দেওয়া হয় না ।

• হিফজ সমাপ্তকারী ছাত্রদেরকে পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি ইলমে ছরফ ও নাহুর বিশেষ কোর্স করা হয়।

• মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে ছাত্রদের চিত্তবিনোদন ও মনোবল দৃঢ় রাখতে উৎসাহ ও উদ্দীপনামূলক ইসলামিক ডকুমেন্টারি দেখানো হয়।

• প্রতিষ্ঠানে অবস্থানরত সকল ছাত্র, শিক্ষক-কর্মচারীদের আঞ্চলিক ভাষা প্রয়োগ পরিহার বাধ্যতামূলক।

• প্রত্যেক ছাত্রের জন্য একটি করে খাট এবং প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র রাখার জন্য আলাদা আলাদা ওয়ারড্রব এর সুব্যবস্থা।

• শীতকালে গরম পানি দিয়ে গোসলের জন্য প্রতিটি ওয়াশরুমে গিজার, ছাত্রদের কাপড় কাচার ওয়াশিং মেশিন, কাপড় ইস্ত্রি এবং মিনারেল পানির সব্যবস্থা।

• ছাত্রদের সার্বক্ষণিক দেখাশোনার জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক শিক্ষক-কর্মচারীর সুব্যবস্থা।

• পরিবেশের সৌন্দর্য্য রক্ষার্থে প্রতিষ্ঠানে অবস্থানরত সকলে “পান” খাওয়া থেকে বিরত থাকি।

প্রয়োজনেঃ ০১৭১৪১১৯০০৯, ০১৮১৬৪৪৫৬৭৪।

এদিকে, ইবতেদায়ি প্রথম থেকে দাখিল ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

সোমবার (১৩ নভেম্বর) সকালে পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন, কক্সবাজার শহরের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সমাজসেবক মমতাজ আহমদ, শহীদ তিতুমির ইনস্টিটিউট এর প্রতিষ্ঠাতা মাস্টার শফিকুল হক, কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম, কক্সবাজার দারুল আরক্বম তাহফিজুল কুরআন মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ ইউনুস ফরাজি, সমাজসেবক আবদুর রশিদ ও কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষক নুরুল হাশেম।

পরীক্ষার হল পরিদর্শনের পাশাপাশি তারা হোস্টেলসহ পুরো প্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখে সন্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন।

সেই সঙ্গে নুরুল কুরআন আদর্শ হিফজ মাদরাসার মনোরম পরিবেশ ও সময়োপযোগী শিক্ষা কারিকুলামের জন্য প্রধান পরিচালক হাফেজ মাওলানা জাফর আলমকে ধন্যবাদ জানান পরিদর্শকগণ।