মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে এসে পড়েছে একটি অবিস্ফোরিত মর্টারশেল। স্থানীয় প্রশাসন বলছে, মিয়ানমার সেনাবাহিনী ঘুমধুম তুমব্রু উত্তর পাড়ায় এই মর্টারশেল নিক্ষেপ করেছে। রোববার ২৮ আগস্ট সকালে স্থানীয় জনসাধারণ মায়ানমার সেনাবাহিনীর নিক্ষেপ করা মর্টারটি ভূমিতে দেখতে পায়। এরপর থেকে স্থানীয় জনসাধারণের মাঝে চরম আতংক বিরাজ করছে।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীর আজিজ বলেন, ‘বড় একটি আওয়াজ হয়েছিল। যার কারণে স্থানীয়দেরকে সেখান থেকে সরিয়ে আনা হচ্ছে। অতিরিক্ত বিজিবি সদস্য মোতায়েন রয়েছে।’

ভারী অস্ত্রটি ১২০ মিলিমিটার সাইজের মটর’র গোলা ১২০ এমএম’ইউ ০০.৮০’০৬ বলে জানা গেছে। এ এলাকায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।৩৪, বিজিবি সীমান্ত পরিস্হিতি পর্যবেক্ষণ করছে। নো ম্যানস ল্যান্ডে কাউকে যেতে দিচ্ছেনা বিজিবি। এ ঘটনায় বিজিবি’র পক্ষ হতে কাউকে আতংকিত না হতেও অনুরোধ জানানো হয়েছে।

তবে ঘুমধুমে মর্টার নিক্ষেপের খবর ছড়িয়ে পড়লে কৌতুহলী জনসাধারণ মর্টারটি দেখার জন্য সেখানে ভীড় করছে।

প্রসঙ্গত, গত ৪/৫ দিন ধরে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় মিয়ানমার সেনাবাহিনী সামরিক মহড়া দিচ্ছে। সীমান্তের ৩৮ নম্বর পিলার থেকে ৪১ নম্বর পিলার পযর্ন্ত প্রায় ১৬ কিলোমিটার এলাকায় এ মহড়া চলছে।