এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:
চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ায় মোটরসাইকেল বাঁচাতে গিয়ে যাত্রীবাহি বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে খাদে পড়ে গেলে মোটরসাইকেল আরোহীসহ ২ জন নিহত হয়েছে।

তারা হলেন, উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের শাহাব উদ্দিনের ছেলে মোটরসাইকেল আরোহী মোহাম্মদ রায়হান (১৯), একই উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের আনোয়ার হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ জিসান (২৫)।

শুক্রবার (৪ আগস্ট) বেলা ২টার দিকে কক্সবাজার মাহাসড়কের ডুলাহাজারা পাগলিরবিল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ সময় ১০ জন যাত্রী কমবেশি আহত হয়েছেন।

তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় মালুমঘাট খ্রিষ্টান হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। তাৎক্ষণিক কারো পরিচয় পাওয়া যায়নি।

সড়ক দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর মকছুদ আহমদ।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা ২টার দিকে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখে যাত্রীবাহী হানিফ পরিবহণের একটি বাসটি ডুলাহাজারা পাগলিরবিল এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা এক মোটরসাইকেল আরোহীকে দুর্ঘটনা থেকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় মোটরসাইকেল আরোহী নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পার্শ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী গুরুতর আহত হয় এবং ট্রাকের সাথে বাসের সংঘর্ষে ১০-১২ জন বাস যাত্রী আহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে স্থানীয় মালুমঘাট মেমোরিয়াল খ্রিস্টান হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোটরসাইকেল আরোহীসহ দুই ব্যক্তি মারা যান।

মহাসড়কের মালুমঘাট হাইওয়ে থানার ইন্সপেক্টর (পুলিশ পরিদর্শক) মকছুদ আহমদ বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় পতিত গাড়ি তিনটি উদ্ধার করে জব্দ করা হয়েছে। নিহত দুইজনের মরদেহ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।