আব্দুস সালাম,টেকনাফ :
কক্সবাজারের টেকনাফের বাহারছড়া চৌকিদার পাড়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে পাহাড়ের পাদদেশে গাছের ঢালে গলায় ফাঁস লাগিয়ে লুৎফর রহমান (৩৫) নামে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে পরিবারের সাথে অভিমান করে গহীন পাহাড়ের পাদদেশে নির্জন জায়গায় গিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। গাছের ঢাল থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় মৃতদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত ব্যক্তি উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের চৌকিদার পাড়ার মৃত তাহের আহমেদের ছেলে লুৎফর রহমান (৩৫)। এসময় তার শরীরে একটি নীল রঙের শার্ট ও লুঙ্গি পরিহিত ছিল।

পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, নিহত লুৎফর রহমান দীর্ঘদিন প্রবাসে ছিলেন। বিগত কয়েক বছর আগে সৌদি আরব থেকে দেশে এসে একই ইউনিয়নের পুরান পাড়া এলাকা থেকে কামরুন্নাহার নামের এক তরুণীকে বিয়ে করেন। সেই থেকে দীর্ঘদিন পারিবারিক কলহ,ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকত। পারিবারিক কলহের কারণে আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করছেন পরিবার।

নিহতের ছোট বোন শারেফা বলেন,” বড় ভাই (লুৎফর রহমান) এর বাড়ি এলজিইডি সড়কের পশ্চিম পাশে। সকালে বড় ভাই বাড়িতে এসে ভাত খেয়েছে। মাকে বলেছে বাড়িতে একটা বড় মোরগ আছে সেটা জবাই করতে বলে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। রাতে আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পেয়েছি। ”

বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক মছিউর রহমান জানান,পাহাড়ের পাদদেশে গাছের ঢালে এক ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহের সুরুতাহাল রিপোর্ট তৈরি করে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে আইনগত প্রক্রিয়া শেষে মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।