আব্দুস সালাম,টেকনাফ:
কক্সবাজারের টেকনাফ থানাধীন বাহারছড়া ইউপিস্থ নয়াপাড়া এলাকায় র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১৫) এর সদস্যরা অভিযান চালিয়ে দেশীয় তৈরি একে-৪৭ সদৃশ রাইফেলসহ দুইজন গ্রেফতার করা হয়েছে।

কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার ও সহকারী পরিচালক ( ল এন্ড মিডিয়া) মো. বিল্লাল উদ্দিন গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান,র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন বাহারছড়া ইউপিস্থ নয়াপাড়া এলাকায় কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মাদক বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। তাৎক্ষণিকভাবে র‌্যাব-১৫ এর একটি আভিযানিক দল সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) ১টার দিকে বর্ণিত স্থানে পৌঁছালে কতিপয় ব্যক্তি দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করলে আভিযানিক দল কর্তৃক মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মাঝের ডেইল এলাকার মৃত আঞ্জু মিয়ার ছেলে রবি আলম প্রকাশ ইব্রাহিম (২৭), টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড আলীখালী এলাকার মৃত ঠান্ডা মিয়ার ছেলে
মোঃ ইসমাইল (২৫) কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এসময় হ্নীলা আলীখালী এলাকার রশিদ মিয়ার ছেলে
হারুন (২৮) পালিয়ে যায়। তখন উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের দেহ ও আশপাশের এলাকা তল্লাশী করে ১নং ধৃত ব্যক্তির হাতে থাকা একটি প্লাস্টিকের বস্তার ভেতর থেকে ১টি দেশীয় তৈরি একে-৪৭ সদৃশ রাইফেল এবং ২নং ধৃত ব্যক্তির পরিহিত লুঙ্গির ডান কোচায় থাকা ১টি থ্যাতলানো গুলিসহ ৫টি গুলি উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা জানায়, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয় লোকচক্ষুর অন্তরালে এলাকায় অস্ত্র ও মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কার্যক্রম করে আসছে এবং উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গোলাবারুদ বিভিন্ন ধরণের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে ব্যবহারের উদ্দেশ্যে তাদের হেফাজতে রেখেছিল।

তিনি আরো জানান,গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করে হস্তন্তর করা হয়েছে।