জালাল আহমদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:

সরকার পতনের একদফা দাবিতে বিএনপির ডাকা দেশব্যাপী দুই দিন অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের কার্জন হলের ফটকে তালা লাগানো এবং ব্যানার টাঙাতে গেলে মারধরের শিকার হন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

জানা যায়, গতকাল ১৪ নভেম্বর (২০২৩) মঙ্গলবার গভীররাতে কার্জন হল এলাকায় ব্যানার টাঙানোর জন্য গেলে ছাত্রলীগের নির্যাতনের শিকার হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও অমর একুশে হল ছাত্রদলের জৈষ্ঠ্য সহ-সভাপতি জসিম খান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক ও শহীদুল্লাহ হল ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইমাম আল নাসের মিশুক।এ সময় তাদের পায়ের গিরায় গিরায় আঘাত করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। হাঁটু থেকে রক্ত বের হতে দেয়া যায়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মাধ্যমে তাদেরকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করা হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তারা শাহবাগ থানা হাজতে আটক রয়েছেন।

শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে প্রত্যক্ষভাবে অংশ নেওয়া ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয় ছাত্রদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সলিমুল্লাহ মুসলিম হল ছাত্রদলের সাবেক নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোঃ তারিকুল ইসলাম এ বিষয়ে বলেন, এভাবে বারবার ছাত্রদলের রক্ত ঝরিয়ে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। সহযোদ্ধাদের শরীরের প্রতিটি আঘাত আমাদের শরীরের উপর আঘাত, সহযোদ্ধাদের ঝরা প্রতি রক্তের ফোটা, আমাদের শরীর থেকে ঝরা রক্তবিন্দু। প্রতিটি আঘাত ও প্রতি ফোটা রক্তের জবাব আমরা রাজপথেই নিবো ইনশাল্লাহ্। সেই দিনটা বেশি দূরে নয়।

এই বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ডক্টর মাকসুদুর রহমানের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলেও তিনি কল রিসিভ করেন নি। অনলাইনে মেসেজ পাঠালেও তিনি রেসপন্স করেন নি।