আব্দুস সালাম,টেকনাফ:

দীর্ঘ ১০ বছর পর কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন আগামী১১সেপ্টেম্বর রবিবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।আর এ সম্মেলন ও কমিটি গঠনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উৎসবের আমেজ।
ইতোমধ্যে পদপ্রত্যাশী নেতারা সম্মেলন সফল করার আহবান জানিয়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকাসহ সম্মেলনের স্থান টেকনাফ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে ফেস্টুন,ব্যানার,তোরণ ও সড়কের আশেপাশে বিলবোর্ড লাগিয়েছেন।
দলীয় সূত্রে জানা যায়,সর্বশেষ ২০১৩সালে টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়।
এ সম্মেলনে কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সাবেক সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত মোহাম্মদ আলী সভাপতি ও নুরুল বশর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।দীর্ঘদিন সম্মেলন না হওয়ায় তারাই দায়িত্ব পালন করেছেন।তবে সম্মেলনকে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও চলছে প্রচার প্রচারণা।
টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক,নুরুল বশর।
সম্মেলনের বিষয়ে তিনি বলেন,টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশে উপজেলা ৬টি ইউনিয়ন,সব ওয়ার্ড ও ১টি পৌরসভার কমিটি ইতোমধ্যে সম্মেলনের মাধ্যমে গঠন করা হয়েছে।কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি,সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি,ধর্ম বিষয় সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা,উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন ও আওয়ামী লীগের একাধিক কেন্দ্রীয় ও জেলা নেতা এ সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।
অপরদিকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে কারা আসছেন তা নিয়ে টেকনাফ উপজেলার রাজনীতিক মহলে অনেক জল্পনা-কল্পনা চলছে।পদপ্রত্যাশী নেতারা বিভিন্ন মহলে তদবির করছেন বলে জানা যায়।তবে সভাপতি পদে টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বশরের নাম বিভিন্ন মহল থেকে শোনা যাচ্ছে।
টেকনাফ উপজেলার একাধিক ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাকর্মী জানান,দীর্ঘ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন না হওয়ায় নেতাকর্মীরা অনেকটা ঝিমিয়ে পড়েছেন ও নতুন নেতৃত্ব তৈরির বিষয়ে বাধাগ্রস্ত হয়।তবে এ সম্মেলনের মাধ্যমে ত্যাগী নেতাদের কেন্দ্র মূল্যায়ন করবে বলে তারা মনে করেন।
টেকনাফ উপজেলা আওয়ামিলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাস্টার জাহেদ হোসেন বলেন,ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে কাউন্সিলদার ভোটের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচন করতে হবে।অন্যতায় মেনে নেওয়া হবে না।