মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

মটর সাইকেল দুর্ঘটনায় মর্মান্তিকভাবে নিহত কক্সবাজার পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ রুমালিয়ার ছড়া (সবুজবাগ) এলাকার মামুনুর রশীদ মামুন (২৩) এর জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারী জুমার নামাজের পর কক্সবাজার শহরের এবিসি ঘোনাস্থ চেয়ারম্যান ঘাটা পুলিশ ফাঁড়ির সামনের মাঠে মরহুম মামুনর রশিদ মামুন এর বিশাল নামাজে জানাজায় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রচুর মুসল্লীর ঢল নামে। মামুনর রশিদ মামুন এর চাচা আক্তারুজ্জামান বাবু’র ইমামতিতে অনুষ্ঠিত জানাজার পূর্বে বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আবুল কাসেম, অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী, কক্সবাজার পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আশরাফুল হুদা ছিদ্দিকী জামসেদ, ছাত্রনেতা মিজানুল আলম, মরহুমের চাচা নাছির উদ্দিন, জব্বারিয়া প্রিন্টার্সের সত্বাধিকারী মোহাম্মদ সেলিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


জানাজা শেষে পিতা হারুনর রশীদ, দাদা কলিমুল্লাহ সিকদার ও দাদী ছুরত বাহার এর কবরের পাশে মামুনুর রশীদ মামুনকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারী রাত সাড়ে ৮ টার দিকে মেরিন ড্রাইভ রোডের দক্ষিণ পাটুয়ারটেক বাঁকা ব্রীজ এলাকায় মামুনুর রশীদ মামুন ও মোহাম্মদ হাসান একত্রে মোটর সাইকেলে করে কক্সবাজারের দিকে আসার সময় সড়ক দুর্ঘটনায় পতিত হন। পরে দুর্ঘটনাস্থল থেকে ২ জনকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে আনা হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মামুনকে মৃত ঘোষনা করেন। গুরতর আহত হাসানকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত মোহাম্মদ হাসান শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর কক্সবাজার অফিসের স্টাফ।

নিহত মামুনর রশিদ মামুন দক্ষিণ রুমালিয়ার ছড়া (সবুজবাগ) এলাকার কন্ট্রাক্টর মৃত হারুনর রশীদ এর পুত্র। মাত্র একদিন আগে গত বুধবার ১ ফেব্রুয়ারী রাতে নিহত মামুনর রশিদ মামুন এর দাদী ছুরত বাহার ইন্তেকাল করেন। প্রায় দুই বছর আগে মামুনের পিতা কন্ট্রাক্টর হারুনর রশীদ কিডনী রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

মামুনর রশিদ মামুন এর পিতা হারুনর রশীদ মুমূর্ষু থাকা অবস্থায় মামুনের মা শামসুন্নাহার তার নিজ দেহের একটি কিডনি স্বামী হারুনর রশীদকে দান করেছিলেন।

নিহত মামুনুর রশীদ মামুন কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র ও কক্সবাজার পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড পূর্ব শাখা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সভাপতি ছিলেন।