শাহেদুল ইসলাম মনির, কুতুবদিয়া :

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় পাওনা পাঁচ হাজার টাকা ফেরত না দেওয়াকে কেন্দ্র করে বোটের মাঝির মারধরে ফজল করিম (৩০) নামে এক মাল্লার মৃত্যু হয়েছে।
গত বুধবার (৪ অক্টোবর) রাত ১০টায় চট্টগ্রাম চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়।

নিহত ফজল করিম উপজেলার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের ছাঁদের ঘোনা গ্রামের বদিউল আলমের ছেলে।
এ ঘটনায় কুতুবদিয়া থানায় মামলা প্রক্রিয়া নিচ্ছে বলে জানান পারিবারিক লোকজন ।

ঘটনার বিষয়ে, ইউপি সদস্য হোসাইন, জসিম, ও দোকানদার ছলিম উল্লাহ বলেন, মাল্লা ফজল করিমের কাছে ৫ হাজার টাকা পাওনা ছিল মাঝি নাছির উদ্দীন। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টায় ছাঁদের ঘোনা এলাকায় ছলিম উল্লাহ দোকানে ফজল করিমের কাছে ৬-৭ জন জলদস্যু সাথে নিয়ে এসে নাছির উদ্দীন ৫ হাজার টাকা ফেরত চান। কিন্তু টাকা ফেরত দিতে আরও কয়েকদিন সময় রাখবে বললে এতে বুকে আঘাত করে এবং টেনে হিঁচড়ে দোকান থেকে বের করে নিয়ে যায় ফজল করিমকে ।

একপর্যায়ে খবর পেয়ে ফজল করিমের বড় ভাই টাকা নিয়ে গেলে মাটিতে পড়া অবস্থা দেখতে পায় এবং রক্তবমি করতে দেখে স্থানীয় লোকজন দ্রুত ফজল করিমকে কুতুবদিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক চট্টগ্রাম হাসপাতালে রেফার করেন।
গত বুধবার ১০ টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ফজল করিমের।

কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শুভ রঞ্জন চাকমা জানান, এখনো এজাহার জমা দেই নি। এজাহার পেলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।