এম.এ আজিজ রাসেল :

বঙ্গোপসাগরের কক্সবাজার নাজিরারটেক চ্যানেলে ফিশিং ট্রলার ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ ১১ জেলেকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। কোস্টগার্ড ও জেলেরা উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। এই ঘটনায় নিখোঁজ জেলের পরিবারে চলছে আহাজারি।

জানা গেছে, শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে সাগর থেকে ফেরার পথে উত্তাল ঢেউয়ের মুখে পড়ে খুরুশকুলের জাকির হোসেনের মালিকানাধীন এফবি মায়ের দোয়া ফিশিং ট্রলার। এসময় ১৯ জন জেলে নিয়ে ডুবে যায় ট্রলারটি। খবর পেয়ে কোস্টগার্ড সদস্যসার তৎপরতা চালিয়ে ৮ জনকে উদ্ধার করে। কিন্তু ১১ জন জেলে এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

কোস্টগার্ড জানিয়েছে, বোট ডুবির খবর পাওয়ার সাথে উদ্ধার তৎপরতায় নামে কোস্টগার্ড। এসময় ৮ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। বাকি ১১ জনকে উদ্ধারে তৎপরতা অব্যাহত আছে।

মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জানে আলম পুতু জানিয়েছেন, আবহাওয়া খারাপ হলে ফিশিং ট্রলারগুলো কূলে ফিরে আসা শুরু করে। শুক্রবারও ফিরে আসার পথে দুঘর্টনার শিকার হয় কয়েকটি বোট।

আজমির ফিশিংয়ের মালিক মোঃ শওকত ওসমান ফারুক বলেন, ভরা মৌসুমে আবহাওয়া খারাপ থাকায় হতাশা বিরাজ করছে মৎস্য ব্যবসায়ীদের মাঝে। তারমধ্যে তেল ও নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধিতে দুঃশ্চিন্তা আরও ভর করেছে।