হ্যাপী করিম, মহেশখালী:
মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়নের সাদেকের কাটা একই রাতে দুই বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা নগদ ৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকা’সহ ১৫ ভরি স্বর্ণালংকার ও তিনটি মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার রাতে পৃথক সময়ে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার সময় ১০-১৫ জন মুখোশধারী ডাকাত দল ঘরের দরজা ভেঙে মৃত কমল মিয়ার পুত্র উলামিয়া(৫৫) বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করে। এ সময় ডাকাত দল তার ছোট ভাই আলতাজ মিয়া(৫০) ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। আলতাফ মিয়া ,উলামিয়া দুই পরিবারের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে রুমে আটকে রাখে। এ সময় তারা আলমারি ভেঙে নগদ ৪,২০,০০০হাজার টাকা ও ১৫ ভরি স্বর্ণালংকার তিনটি মোবাইল’সহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায় বলে জানান পরিবারে লোকজন।

শাপলাপুর ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান জসিম জানান,গভীর রাতে ১০/১৫ জনের সংঘবদ্ধ ডাকাত দল উলামিয়া,ও আলতাজ মিয়া দুই বাড়িতে ডাকাতি হানা দেয়। এ সময় ডাকাত দল ঘরের লোকজনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনার পর এলাকাবাসী ধাওয়া দিলে ডাকাত দল পালিয়ে যায়। এসময় স্থানীয় মেম্বার দানু মিয়া ও ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন স্থানীয় এলাকাবাসী ডাকাত দলের আতঙ্কে রয়েছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন.. সিনিয়র সহকারী পুলিশ এএসপি সার্কেল মহেশখালী আবু তাহের ফারুকী, মহেশখালী থানার ওসি তদন্ত মীর আব্দুর রাজ্জাক’সহ পুলিশের একটি টিম। উক্ত বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণে প্রক্রিয়াধীন বলে জানান মহেশখালী অফিসার ইনচার্জ প্রণব চৌধুরী।