এম.এ আজিজ রাসেল:

বঙ্গোপসাগরের সোনাদিয়া নাজিরারটেক চ্যানেলে ট্রলারডুবির ঘটনায় ২ জেলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তারা হলেন— মোহাম্মদ আবু তৈয়ব ও সাইফুল ইসলাম। শনিবার (২০ আগস্ট) বিকেল ৫ টার দিকে মহেশখালী চ্যানেল থেকে আবু তৈয়ব ও সন্ধ্যার দিকে সোনাদিয়া চ্যানেল থেকে সাইফুলের মরদেহ ভাসতে দেখে জেলেরা। পরে স্বজনরা কোস্টগার্ডের সহায়তা মরদেহ দুটি উদ্ধার করে।

নিহত সাইফুলের বাড়ি কক্সবাজার সদরের খুরুশকুল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে। আবু তৈয়বের বাড়ি জেলগেট এলাকায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোস্টগার্ড পূর্বজোনের কক্সবাজার স্টেশনের কন্টিজেন্ট কমান্ডার এম হামিদুল ইসলাম। নিহতদের বাড়ি কক্সবাজার সদরের খুরুশকুল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে।

পরিবার ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শুক্রবার দুপুরে ট্রলার ডুবির পর দুই দফায় ১১ জন জেলেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার দুপুরে সাগরে বৈরী আবহাওয়ার কবলে পড়ে মায়ের দোয়া নামে একটি মাছ ধরার ট্রলার। ওই ট্রলারে ১৯ জন জেলে ছিলো। এই ঘটনায় এখনো নিখোঁজ রয়েছেন ৭ জন জেলে।

বাকি নিখোঁজ ৮ জনের মধ্যে তৈয়ব ও সাইফুলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে শনিবার।

এদিকে ঘটনার পর থেকে খুরুশকুল ঘাটে এলাকাবাসী ও স্বজনদের ভীড় জমেছে।