সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
টেকনাফের হ্নীলা স্টেশনে বিএনপির শান্তিপূর্ণ পদযাত্রায় আওয়ামী লীগের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে কক্সবাজার জেলা বিএনপি। এক বিবৃতিতে জেলা বিএনপি সভাপতি ও সাবেক হুইপ শাহজাহান চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আরা স্বপ্না বিনা উস্কানিতে বিএনপির শান্তিপূর্ণ সংক্ষিপ্ত পদযাত্রায় হামলার ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছেন। তাঁরা এই ঘটনায় জড়িতদের অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তার করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন।

আওয়ামী সন্ত্রাসিদের এই হামলায় হ্নীলা ইউনিয়ন উত্তর শাখা যুবদলের সদস্য সচিব আবদুল্লাহ বিন কাদের, হ্নীলা উত্তর শাখা ছাত্রদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইমরান, হ্নীলা উত্তর শাখা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক জামাল হোসেন ও আবদুর রহিম কাজু, যুবদল নেতা মোহাম্মদ ইলিয়াছ, মোহাম্মদ ফয়সাল, মোহাম্মদ জুনায়েদ, হ্নীলা উত্তর শাখা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক আবুল হাশেম, হোয়াইক্যং দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক জাহিদ হোসেনসহ অন্তত ২০ জন নেতা-কর্মী আহত হন। ওই সময় হ্নীলা দক্ষিণ শাখা বিএনপির সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরীর ব্যক্তিগত মাইক্রোবাসটিও ভাংচুর করে সন্ত্রাসিরা।

শনিবার বিকালে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপির হ্নীলা ইউনিয়ন উত্তর শাখা কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শান্তিপূর্ণ পদযাত্রার আয়োজন করে। আইনশৃংখলা বাহিনীর অনুমোদন নিয়ে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য এই কর্মসূচি পালন করা হয়। ওই সময় আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন শাখার সভাপতি ও হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন মেম্বারের নেতৃত্বে মিছিল নিয়ে এসে বিএনপি নেতা-কর্মীদের উপর হামলা চালায়।

আওয়ামী লীগের চিহ্নিত সন্ত্রাসিরা এই হামলায় অংশ নেয়। তারা বিএনপির নিরীহ নেতা-কর্মীদের উপর হামলে পড়ে। ওই সময় বিএনপি নেতা-কর্মীরা আইনশৃংখলা রক্ষায় ফ্যাসাদ এড়িয়ে চলার চেষ্টা করলেও আওয়ামী সন্ত্রাসিরা তাদের পিছু নেয় এবং হামলা চালিয়ে যায়।

ওই বিবৃতিতে বিএনপি সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আরা স্বপ্না এই ঘটনাকে গণতান্ত্রিক রাজনীতির জন্য ন্যাক্কারজনক বলে উল্লেখ করেছেন। তাঁরা বলেন, আওয়ামী লীগ সাধারণ মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। এখন বল প্রয়োগ করে রাজনৈতিক অধিকার ও সামাজিক সম্প্রীতিও নষ্ট করে দিতে চাইছে।

আওয়ামী লীগ জনবিচ্ছিন্ন হয়ে বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের দমনের অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন জেলা বিএনপির সর্বোচ্চ এই নেতাদ্বয়।

তাঁরা অবিলম্বে হামলাকারি আওয়ামী সন্ত্রাসিদের গ্রেফতারের দাবি জানান এবং সংঘটিত ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।

কক্সবাজার জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক ইউসুফ বদরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।